সাংবাদিক আজাদ রহমানের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন  - ঝিনাইদহ নিউজঝিনাইদহ নিউজ
সাংবাদিক আজাদ রহমানের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন 

সাংবাদিক আজাদ রহমানের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন 

 

সাংবাদিক আজাদ রহমানের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন 

সাংবাদিক আজাদ রহমানের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন

প্রথম আলো’র সাংবাদিক আজাদ রহমানের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে ঝিনাইদহে অবস্থান কর্মসূচি ও মানববন্ধন

প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক আজাদ রহমান এর নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহরের দাবিতে ঝিনাইদহে অবস্থান ও মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। স্থানিয় সাংবাদিকরা মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচি পালন করে। পরে কোর্ট এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করে সাংবাদিকরা।
ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের আয়োজনে অনুষ্ঠিত অবস্থান কর্মসুচি ও মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন প্রেসক্লাবের সভাপতি একুশে টিভির প্রতিনিধি এম রায়হান, সাধারণ সম্পাদক এটিএন বাংলার প্রতিনিধি নিজাম জোয়ারদার বাবলু, সিনিয়র সাংবাদিক কালেরকন্ঠের প্রতিনিধি এম. সাইফুল মাবুদসহ অন্যরা।
বক্তারা বলেন সাংবাদিক আজাদ রহমান প্রথম আলো’র শুরু থেকে সুনামের সঙ্গে সাংবাদিকতা করে যাচ্ছেন। তার লেখোনির মাধ্যমে জেলাবাসী অনেক উপকৃত হয়েছেন। অথচ কৃষি বিভাগের উপজেলা পর্যায়ের একটি অনিয়মের খবরকে কেন্দ্র করে তার নামে ১২ টি মামলা দেওয়া হয়। সংবাদ নিয়ে সৃষ্ট ১০ টি মানহানির মামলা ইতিমধ্যে নিষ্পত্তি হয়েছে। চাঁদাবাজির দুইটি মামলা এখনও চলমান আছে।
এই মামলায় তাকে ফাঁসিয়ে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। কৃষি বিভাগ নানা ভাবে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন মিথ্যা মামলায় তাকে ফাঁসানোর। এ জন্য তারা বাদি-সাক্ষীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে নানা ভাবে প্রভাব বিষÍার করছেন। সরকারের একাধিক মন্ত্রীর নাম ব্যবহার করে বাদি-স্বাক্ষীদের ভয় দেখানোর হচ্ছে। মিথ্যা স্বাক্ষ্য দেওয়ানোর চেষ্টা চলছে। যা অত্যান্ত দুঃখজনক এবং সৎ সাংবাদিকতার অন্তরায়। বক্তারা আজাদ রহমান এর নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহারের দাবি জানান। অন্যথায় মামলা প্রত্যাহার না করা হলে আগামীতে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে হুশিয়ারী দেন।
পরে জেলা প্রশাসক এবং পুলিশ সুপারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী, আইনমন্ত্রী, তথ্যমন্ত্রী ও স্বরাষ্টমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদাণ করা হয়। এ সময় জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ ও পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান স্বারকলিপি গ্রহন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *