সাপের কামড়ে মায়ের মৃত্যু

সন্তাকে বাচাঁতে সাপের কামড়ে মায়ের মৃত্যু

সাপের কামড়ে মায়ের মৃত্যু

সাপের কামড়ে মায়ের মৃত্যু

সন্তাকে বাচাঁতে দরগায় গিয়ে সাপের কামড়ে মারা গেছে এক মা। নিহত মা’র নাম মরিয়ম বেগম (৩২)। সে কালীগঞ্জ শহরের মোবারকগঞ্জ সুগার মিলের শ্রমিক সাহেব আলীর স্ত্রী। তারা দীর্ঘদিন ধরে মিলের কোলনীতে বসবাস করতেন।

নিহতের স্বামী সাহেব আলী জানান, আমাদের তিন সন্তানের মধ্যে ছোট ছেলে ইউনুছ আলী জন্মগত ভাবেই শারিরীক প্রতিবন্ধি। ওর বয়স দেড় বছর। জন্মের পর থেকে অনেক ডাক্তারের দেখিয়ে চিকিৎসা করা হয়েছে কিন্তু কোন পরিবর্তন হয়নি। সম্প্রতি আমার স্ত্রী মরিয়ম জানতে পারে কালীগঞ্জ উপজেলার ত্রিলোচনপুর বাজারের পাশে একটি দরগা আছে। সেখানে নিয়ে রেখে দিলে ছেলে সুস্থ্য হয়ে যাবে।

এমন বিশ্বাসে আমার স্ত্রী মরিয়ম গত চারদিন হলো অসুস্থ্য ছেলেকে নিয়ে কথিত এই দরগার একটি গাছের নীচে অবস্থান শুরু করে। এরমধ্যে রোববার দিবাগত রাতে বিষধর সাপে কামড় দেয়। সাপের কামড়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে রাতেই স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে একটি উঝার কাছে নিয়ে ঝাড়-ফুক করে। এরপর আবারো সে অসুস্থ্য সন্তানকে নিয়ে দরগায় গিয়ে অবস্থান করে। সোমবার দুপুরে আবারো অসুস্থ্য হয়ে পড়লে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য মপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এরপর বিকাল ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

তারেক মাহমুদ
ঝিনাইদহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *